৮২ রানেই অলআউট বাংলাদেশ!

0

স্কাই নিউজ প্রতিবেদক: লঙ্কান বোলারদের সামনে দাঁড়াতেই পারলেন না তামিম-সাকিবরা। ত্রিদেশীয় এই সিরিজে আগাগোড়া দাপট দেখানো বাংলাদেশ অলআউট হলো মাত্র ৮২ রানে। এমনকি নির্ধারিত ৫০ ওভারের অর্ধেকও খেলতে পারেননি স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা।

ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন, বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৫ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। লাকমালের বলে বোল্ড হয়ে শূন্য রানে সাজঘরে ফেরেন এনামুল হক বিজয়। এরপর ব্যাটে এসে পরপর দুটি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দারুণ শুরুর বার্তা দিচ্ছিলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু তার সেই যাত্রাপথ দীর্ঘ হয়নি। দলীয় ১৫ রানের মাথায় রান আউটের শিকার হন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

এরপর দলীয় স্কোরে ১ রান যোগ হতে না হতেই একই পথে হাটেন সিরিজের অন্যতম সফল ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। লাকমালের বলে ধানুশকা গুনাথিলাকার হাতে ক্যাচ দেন তিনি। এরপর শুধুই আসা আর যাওয়া। ফল ২৪ ওভারে ৮২ রানে অলআউট।

শ্রীলঙ্কার জন্য আজকের ম্যাচটা ফাইনালের আগে ফাইনাল। বাংলাদেশ প্রথম ২ ম্যাচ খেলেই ফাইনালে উঠে গেছে। তৃতীয় ম্যাচে আবারো বোনাস পয়েন্টসহ জিতেছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ফলে বাংলাদেশের এই ম্যাচে কোনো চাওয়া পাওয়ার ব্যাপার নেই। তবে শ্রীলঙ্কার জন্য আছে অনেক হিসাব।

আজ বাংলাদেশের বিপক্ষে জিতলেই ফাইনালে চলে যাবে লঙ্কানরা। হারলেও সুযোগ থাকবে তাদের। তবে সে ক্ষেত্রে হারের ব্যবধান যাতে বড় না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে হাথুরুসিংহের শীষ্যদের। ৩ ম্যাচ শেষে ১টি জয়সহ শ্রীলঙ্কার রান রেট মাইনাস ০.৯৮৯। ৪  ম্যাচ খেলা জিম্বাবুয়ের রান রেট মাইনাস ১.০৮। আজ শ্রীলঙ্কা বড় ব্যবধানে হারলে ফাইনালে চলে যেতে পারে জিম্বাবুয়েও।

LEAVE A REPLY

eighteen − ten =