২১ অগাস্টের সূর্যগ্রহণের জেরে ৯ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত্‍ ঘাটতি হতে চলেছে মার্কিনযুক্তরাষ্ট্রে!

0

সূর্যগ্রহণে লোডশেডিং। না, গ্রহণের সময় সূর্যের আলো ঢেকে গিয়ে অন্ধকার নামা নয়। এবারে নিভে যেতে পারে বিজলি বাতিও। একুশে অগাস্টের সূর্যগ্রহণের জেরে প্রায় ন-হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত্‍ ঘাটতি হতে চলেছে মার্কিনযুক্তরাষ্ট্রে। যা প্রায় নটি পরমাণু রিঅ্যাক্টরের থেকে তৈরি বিদ্যুতের সমান।

‘গ্রেট আমেরিকান সোলার একলিপস্’। অগাস্টের একুশ তারিখের সেই পূর্ণগ্রাস সূর্য গ্রহণ দেখতেই এখন সাজো সাজো রব মার্কিন মুলুকে। পশ্চিম উপকূল থেকে পূর্ব উপকূল, সেদিন গোটা আমেরিকার মানচিত্র জুড়ে নামবে এই পূর্ণগ্রাসের ছায়া। লাখো লাখো মার্কিনি যখন এই বিরল দৃশ্যের সাক্ষী হতে তৈরি হচ্ছেন, তখন সেই সূর্যগ্রহণই চ্যালেঞ্জের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে সেদেশের বিদ্যুত্‍ ব্যবস্থাকে।

২১ অগাস্ট পূর্ণগ্রাসের ছায়া প্রথম পড়বে আমেরিকার অরিগানে। এরপর ১৪টি প্রদেশের ওপর দিয়ে সেই ছায়া ছড়িয়ে যাবে দক্ষিণ ক্যারোলিনা পর্যন্ত। মার্কিন মানচিত্রের বুক চিরে চলে যাওয়া এই ছায়াই চিন্তা বাড়িয়েছে প্রশাসনের। কারণ, এই গ্রহণের জেরেই এক নজিরবিহীন বিদ্যুত্‍ সঙ্কটের মুখে গোটা মার্কিন মুলুক। ব্লুমসবার্গের গ্রিড-ফোরকাস্ট অনুযায়ী, সূর্যগ্রহণের জেরে ২১ অগাস্ট প্রায় ৯ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত্‍ ঘাটতি হতে চলছে আমেরিকায়।

২০১২ সালের পর থেকে আমেরিকা জোর দিয়েছে সৌরশক্তিতে। প্রায় প্রতি বাড়ির ছাদেই বসেছে সোলার প্যানেল। সৌরবিদ্যুতের পরিমাণ ৫ বছরে লাফিয়ে ৯ গুণ বেড়ে গিয়েছে। পরিবেশ বান্ধব এই উদ্যোগের ফলে বিদ্যুত আরও সস্তা হয়েছে। তবে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণে সেই ব্যবস্থাই এবার বিরলতম চ্যালেঞ্জের মুখে।

LEAVE A REPLY

1 × 2 =