হারিয়ে যাবে  ব্যাঙের ডাক !

0

স্কাই নিউজ প্রতিবেদক: পরিবেশ ও তার ভারসাম্য নিয়ে যতই আলোচনা-পর্যালোচনা হোক না কেন, প্রতিনিয়তই শোনা যাচ্ছে কোনও না কোনও দুঃসংবাদ। গ্লোবাল ওয়ার্মিং-এর ফলে ভেঙে যাচ্ছে আর্কটিক অঞ্চলের বরফ দেওয়াল। কখনও বা পরিবেশবিদরা হা-হুতাশ করছেন বিশেষ প্রজাতির কোনও প্রাণী বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ায়।

মনুষ্যজাতি যতই বাড়ছে, ততই বিনষ্ট হচ্ছে পরিবেশ ও প্রকৃতি। সম্প্রতি এমনই এক তথ্য উঠে এসেছে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে। সেখানে বলা হয়েছে যে, ভারতের মাটি থেকে প্রায় ৮০% ব্যাংয়ের প্রজাতি বিলুপ্তির পথে।

দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈজ্ঞানিক এস ডি বিজু জানিয়েছেন, বিশ্বজুড়ে এই বিলুপ্তির সংখ্যাটি ৭৪% হলেও, ভারতে তা আরও ৬ শতাংশ বেশি। ভারতে ৪১২ ধরনের ‘অ্যামফিবিয়ান’ বা উভচর প্রাণী পাওয়া যায়, যার মধ্যে বেশ কয়েকটিই এখন আর নেই বললেই চলে। এবং এগুলির মধ্যে ‘ইন্ডিয়ান পার্পল ফ্রগ’ রয়েছে তালিকার শীর্ষে।

পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে ব্যাঙের অবদান ভুলতে বসেছে সকলে। সাম্প্রতিক কালে, মশার উৎপাতে বেড়ে চলেছে নানা ধরনের অসুখ। মশার ডিম খায়, এমন মাছের চাষ করা হচ্ছে তাই। কিন্তু এ ক্ষেত্রে ব্যাঙও যে সেই কাজটি করতে পারে, তা কেউ খেয়াল করছেন না।

বাঘ-হাতি নিয়ে সকলে মাতামাতি করছেন ঠিকই, কিন্তু এই ছোট প্রাণীদেরও বিশ্বে কতটা প্রয়োজন, তা নিয়ে কেন কেউ ভাবছেন না! খানিক হতাশ হয়েই জানিয়েছেন বৈজ্ঞানিক এস ডি বিজু।

LEAVE A REPLY

two × five =