স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের আন্দোলন অব্যাহত

0

স্কাই নিউজ প্রতিবেদক: গত ৬ দিন ধরে টানা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা। জানা গেছে, গত ৩৩ বছর ধরে ৫ হাজার ৪৭৯টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষক সরকারি বেতন-ভাতা বঞ্চিত। কিছু মাদরাসার শিক্ষক মাসিক বেতন-ভাতা পেলেও তা খুবই সামান্য।
গত বছর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের উদ্যোগ নিয়েছিল। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগে হস্থান্তর করায় সে প্রক্রিয়াটিও থমকে গেছে। বাধ্য হয়ে জাতীয়করণের দাবিতে গত রোববার থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে টানা অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন। তাতেও সাড়া না মেলায় হতাশ হয়ে পড়ছেন আন্দোলনকারী শিক্ষকরা।
বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির সভাপতি আলহাজ কারী রুহুল আমিন চৌধুরী বলেন, ৩৩ বছর ধরে আমরা অভিভাবকহীন ছিলাম। প্রধানমন্ত্রীকে স্মরকলিপি দেয়ার পর ২০১৬ সালের ১৮ মে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে নেয়া হয়। মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করলে সরকারিকরণের আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি। সরকারি করতে মন্ত্রী একটি ওয়ার্কিং কমিটিও গঠন করে দেন। আমরা খুশিতে বাড়ি ফিরে গিয়েছিলাম। কিন্তু হঠাৎ করে আমাদের কিছু না জানিয়েই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা হস্থান্তর করা হয়। এটা ষড়যন্ত্র। প্রাথমিক শিক্ষা আইনের পরিপন্থী।

তিনি আরও বলেন, রোববার বেলা ১১টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের নবনিযযুক্ত প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলীর সঙ্গে দেখা করে স্মারকলিপি দেব আমরা। যে কোনো মূল্যে জাতীয়করণ চাই। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।
শিক্ষকদের দাবির বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি জরুরি একটি মিটিংয়ে আছি। এ মুহূর্তে কোনো মন্তব্য করতে পারব না।
শিক্ষকরা জানান, ১৯৮৪ সালে ৭৮ অর্ডিন্যান্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে স্বতন্ত্র মাদ্রাসা নিবন্ধন শুরু হয়। তখন থেকেই স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা সরকারের নিয়মনীতি অনুযায়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে পাঠদান করে আসছেন। একই কারিকুলামে পাঠদান করা হয়। পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষায় এসব মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মতোই সরকারের সব কাজে অংশ নেন তারা।

LEAVE A REPLY

20 − seventeen =