… সেই উত্তাল মার্চ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক: বছর ঘুরে আবার এসেছে মার্চ। আমাদের স্বাধীনতার মাস ।গণপ্রতিরোধের মাস।

মার্চের উত্তাল সেই দিনগুলো কি আমরা ভুলতে বসেছি? যে স্বপ্ন নিয়ে শুরু হয়েছিল গণপ্রতিরোধ, পাকিস্তানি হায়েনার বিরুদ্ধে-সেই অগ্নিঝরা দিনের কথা কি ভুলে যাওয়া আদৌ সম্ভব?

দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ, ৩০ লক্ষ প্রাণের বলিদান, ২ লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রম লুণ্ঠনের বিনিময়ে যে স্বাধীনতা আমরা পেলাম ১৬ ডিসেম্বর- সেই হৃদয়স্পর্শী ঘটনা প্রবাহিত হোক প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে।

এমন কথা আমরা বলতেই পারি যে- কোটি জনতার মুষ্ঠিবদ্ধ হাত-কণ্ঠস্বর যেন গর্জে উঠেছিল অস্ত্রের মতোন।সেই অকুতোভয় মুক্তিসেনার দল ছিল বলেই, আমরা পেয়েছি স্বাধীনতা। পেয়েছি দেশ-বাংলা।

এই পাওয়া কোনভাবেই ১০ মাসে আসেনি। সুদীর্ঘ ২১ বছরের আত্মমর্যাদা আর অধিকার আন্দোলনের চূড়ান্ত ক্ষোভ-না পাওয়া-বঞ্চনার সমষ্টিগত ফলই ছিল, মুক্তিযুদ্ধ।

এই ক্ষোভ যেন আরও বলিষ্ঠভাবে আওয়াজ তোলে ৭ মার্চ- জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের মাধ্যমে।

যে কারণে দেরিতে হলেও ‘ইউনেস্কো’ এই ভাষণকে বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসাবে স্বীকৃতি দিতে বাধ্য হয়েছে।

স্বাধীনতার চেতনায়, বাঙ্গালি আদর্শে বিশ্বাসী মানুষের দেশ হবে, আমার সোনার বাংলাদেশ-এই যেন হয় সর্বস্তরের মানুষের চাওয়া।

চেতনার এই বিপ্লব বেঁচে থাক অনন্তকাল- প্রত্যাশা এমনই।

 

LEAVE A REPLY

seventeen − nine =