সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের  প্রায় ২০টি সামরিক ঘাঁটি !

0

স্কাইনিউজ প্রতিবেদক: সিরিয়ার কুর্দি নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ২০টি সামরিক ঘাঁটি তৈরি করেছে বলে অভিযোগ রাশিয়ার।

বৃহস্পতিবার রাশিয়ার নিরাপত্তা কাউন্সিলের এক কর্মকর্তা এ কথা বলেছেন বলে বার্তা সংস্থা আরআইএ-র বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ওয়াশিংটন কুর্দিদের অত্যাধুনিক অস্ত্র সরবরাহ করছে বলেও জানিয়েছেন নিরাপত্তা কাউন্সিলের সচিব নিকোলাই পাত্রুশেভের সহযোগী আলেকজান্দার ভেনেদিকতোভ।

সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকাগুলোতে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আক্রমণ প্রতিরোধকারী সিরিয়ার বিদ্রোহী গোষ্ঠী কুর্দিদের পিপলস্ প্রটেকশন ইউনিটকে (ওয়াইপিজি) সমর্থন দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ওয়াইপিজি সিরিয়ান কুর্দির্শ ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন পার্টির (পিওয়াইডি) সশস্ত্র শাখা।

ওয়াইপিজি সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিশাল একটি এলাকা নিয়ন্ত্রণ করছে, যা এক সময় আইএসের নিয়ন্ত্রণে ছিল। এই এলাকায়ই যুক্তরাষ্ট্র সামরিক ঘাঁটিগুলো স্থাপন করেছে বলে অভিযোগ রাশিয়ার।

ওয়াইপিজিকে তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে কুর্দি অধ্যুষিত এলাকাগুলো স্বায়ত্তশাসনের জন্য সশস্ত্র বিদ্রোহরত কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) বর্ধিতাংশ বলে বিবেচনা করে আঙ্কারা। ওয়াইপিজির শক্তি বৃদ্ধিতে নিষিদ্ধঘোষিত পিকেকে আরো উজ্জীবিত হয়ে উঠবে, এমন ধারণায় শঙ্কিত তুরস্ক সরকার।

এই কারণে তুরস্কের সীমান্ত সংলগ্ন আফ্রিন থেকে ওয়াইপিজির যোদ্ধাদের হটাতে সেখানে সামরিক অভিযান পরিচালনা করছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিজেপ তায়িপ এরদোয়ানের সরকার।

অপরদিকে, তুরস্কের সামরিক অভিযান বিরোধী সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ কুর্দিদের আহ্বানে তুর্কি সেনাদের প্রতিরোধে তার অনুগত বাহিনীকে আফ্রিনে পাঠিয়েছেন।

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে প্রেসিডেন্ট আসাদকে সমর্থন দিচ্ছে রাশিয়া ও ইরান। পাশাপাশি ইরান-সমর্থিত লেবাননের শিয়া হিজবুল্লাহ গোষ্ঠীও আসাদের পক্ষ হয়ে লড়াই করছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্ক, এই দুই নেটো জোটমিত্র আসাদের বিরুদ্ধ শক্তি হিসেবে সিরিয়ার বিদ্রোহীদের সমর্থন দিয়ে আসলেও কুর্দি প্রশ্নে তারা এক জটিল পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছে।

LEAVE A REPLY

12 + seven =