শিশুদের একাকীত্ব কীভাবে দূর করবেন জানুন

0

একাকীত্ব, মানসিক কষ্ট, চাপ এসব শুধু বড়রাই নয়, শিশুদের ক্ষেত্রেও দেখা যায়। অতিরিক্ত পড়াশোনার চাপ, খেলাধুলোর অভাব, বিভিন্ন পারিবারিক সমস্যা শিশুদের উপরেও প্রভাব ফেলে। তারা তখন একাকীত্বে ভোগে। মানসিক চাপের মধ্যে বড় হতে থাকে। এতে প্রভাব পড়ে তাদের শৈশবে। অনেক ক্ষেত্রে শৈশবের এই ক্ষতিকর প্রভাব শিশুদের গোটা জীবনটাই নষ্ট করে দেয়।

শিশুদের মানসিক চাপ, একাকীত্ব থেকে মুক্তির পথ জানালেন গবেষকেরা। তাঁরা বলছেন, শিশুদের মন ভালো রাখার একমাত্র উপায় হল গান শোনা। গান শুনলে মন ভালো থাকে। মনের আবেগ প্রকাশিত হয়। আবেগ মনের মধ্যে চেপে রাখলে তা মস্তিষ্কের ক্ষতি করে।

গবেষনায় উঠে এসেছে একাধিক তথ্য। গান শুধু আমাদেরই মন ভালো করে না। একইসঙ্গে পশুদের ক্ষেত্রেও গান শোনার অনেক উপকারিতা রয়েছে। গান মুড ভালো করে। মানসিক কষ্ট দূর করে। বড়দের পাশাপাশি শিশুদেরকেও চাপ মুক্ত হতে সাহায্য করে।

একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ৮ থেকে ১৬ বছর বয়সী শিশু এবং কিশোর এই মিউজিক থেরাপির মাধ্যমে তাদের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে, মানসিক কষ্ট দূর হয়েছে, তারা অনেক বেশি প্রাণোচ্ছ্বল হয়েছে। মিউজিক থেরাপি ওষুধকেও হার মানিয়ে দেয়। তাই আপনার শিশুটিও যদি একাকীত্ব কিংবা মানসিক কষ্টে ভোগে, তাহলে তাকেও মিউজিক থেরাপি দিন।

LEAVE A REPLY

four × four =