মোবাইল টাওয়ার বসছে চাঁদে!

0

স্কাইনিউজ প্রতিবেদক:‘পাহাড়, গভীর জঙ্গল, মাঝ সমুদ্র— যেখানেই যাবেন আমাদের নেটওয়ার্ক আপনাকে ফলো করবে।’

এই ‘ফলো’ করা বোঝাতে একটি ছোট্ট ‘পাগ’-এর সাহায্য নেয় ভোডাফোন। পাহাড়, জঙ্গল, সমুদ্র পেরিয়ে জনপ্রিয় বিজ্ঞাপনের এই ছোট্ট পাগটিকে এ বার পাড়ি দিতে হবে চাঁদে! ভোডাফোন যে সেখানেও এ বার মোবাইল টাওয়ার বসানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে! সংস্থার দাবি, সব কিছু ঠিকঠাক এগলে ২০১৯-এর মধ্যেই চাঁদে বসবে প্রথম মোবাইল টাওয়ার।

তবে চাঁদ বলে কথা! তাই সেই মুলুকে একা ‘যুদ্ধ’-এ নামছে না ভোডাফোন। টাওয়ার বসানোর কাজে ভোডাফোন একা নামছে না। ওই প্রজেক্টে ভোডাফোনের সঙ্গে আছে নোকিয়া এবং গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা অডি-ও।

ভোডাফোনের তরফে জানানো হয়েছে, চাঁদে টাওয়ার বসানোর যাবতীয় প্রযুক্তিগত সাহায্য করছে নোকিয়া। ২০১৯ সালে কেপ ক্যানাভেরাল থেকে এলন মাস্কের কোম্পানি ‘স্পেস এক্স’-এর ‘ফ্যালকন ৯’ রকেটে চাপিয়ে চাঁদে পাঠানো হবে ওই টাওয়ার। স্পেস এক্সের উদ্যোগে সেটাই হতে চলেছে বিশ্বের প্রথম বেসরকারি চন্দ্রাভিযান। স্পেস এক্স এর আগেও দু’বার সফল ভাবে ফ্যালকন রকেটের উত্‌ক্ষেপণ করেছে।

অভিনব এই প্রজেক্টটি নিয়ে ভোডাফোন জার্মানির চিফ এগজিটিউটিভ হান্স আমেটস্ট্রেটার বলেন, “মোবাইল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির উন্নতিতে আমাদের এই প্রজেক্ট সাহায্য করবে বলে আমরা আশাবাদী।” তবে কী ভাবে এই টাওয়ার কাজ করবে তা জানানো হয়নি ভোডাফোনের তরফে।

 

 

 

LEAVE A REPLY

17 + 8 =