ব্রাজিলে ২০০ বছরের পুরনো জাদুঘর পুড়ে ছাই!

0

ব্রাজিলের রিও ডি জেনেইরোতে আগুনে ভস্মীভূত ২০০ বছর পুরনো ন্যাশনাল মিউজিয়াম। ব্রাজিলের সবচেয়ে পুরনো এই জাদুঘরে বিরল প্রত্নসম্পদ থেকে শুরু করে ঐতিহাসিক স্মারক মিলিয়ে প্রায় দুই কোটি নিদর্শন সংরক্ষিত ছিল। ব্রাজিলের স্থানীয় সময় ২ সেপ্টেম্বর রবিবার রাতে এই অগ্নিকাণ্ডে বেশিরভাগই ধ্বংস হয়ে গিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিবিসি সূত্রে খবর, রবিবার রাতে জাদুঘর বন্ধ হওয়ার পর কোনও এক সময় ওই ভবনে আগুন লাগে। তবে কীভাবে আগুন লাগে তা এখনও স্পষ্ট নয়। জাদুঘরের ভেতরে কাঠের ফ্লোর ও কাগজের মতো দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই অগ্নিকাণ্ডে কেউ হতাহত হয়েছে কি না- সে বিষয়ে নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি এখনও। ব্রাজিলের সবচেয়ে প্রাচীন বিজ্ঞানভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃত এ জাদুঘরটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও সরকারিভাবে এখনও জানানো হয়নি। চলতি বছরের শুরু দিকে জাদুঘরটির দুশো বছর পূর্তি অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয়। একসময় পর্তুগিজ রাজপরিবারের বাসস্থান ছিল এই জাদুঘরটি। প্রেসিডেন্ট মিশেল তেমের এক টুইট করে লেখেন,”ব্রাজিলিয়ানদের জন্য এটা একটা দুঃখের দিন। ওই ভবনের সঙ্গে আমাদের ইতিহাসের অপরিমেয় ক্ষতি হল।”

জানা গেছে, ব্রাজিলের পাশাপাশি মিশরসহ বিভিন্ন দেশের প্রত্নসম্পদ সংরক্ষিত ছিল ওই জাদুঘরে। ডাইনোসরের হাড় এবং ১২ হাজার বছর আগের এক মানুষের মাথার খুলিও সংরক্ষিত ছিল জাদুঘরটিতে। ১৮১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল মিউজিয়াম অব ব্রাজিলের দেখভালের দায়িত্বে যৌথভাবে ছিল রিও দে জেনেইরো ফেডারেল ইউনিভার্সিটি এবং ব্রাজিলের শিক্ষা মন্ত্রণালয়।রাষ্ট্রায়ত্ত বিএনডিইএস ব্যাঙ্কের সঙ্গে জাদুঘর ভবনের সংস্কারের জন্য কিছুদিন আগে চুক্তিস্বাক্ষর করা হয়েছিল বলে জানান জাদুঘরের উপ-পরিচালক লুইজু দুয়ার্চি।

LEAVE A REPLY

sixteen − 7 =