বসন্ত এসেছে, তাই…

0

স্কাইনিউজ প্রতিবেদক: মন-পাগল করে দেওয়া বসন্তের হাওয়া কার না ভাল লাগে! কিন্তু এ সময় বাড়তি যত্ন না নিলে আপনার ত্বকও পাগলামো শুরু করে দিতে পারে! রুক্ষ খসখসে ত্বক, ঘন ঘন চামড়া ওঠা আর পিগমেন্টেশন এই সময়ের ‘কমন’ সমস্যা। কী করে মোকাবিলা করবেন, জেনে নিন-

হাইড্রেটিং ক্লিনজার

এই সময়টায় ত্বকের শুষ্কতা বেড়ে যায়। আর্দ্রতা ফেরাতে এমন ক্লিনজার ব্যবহার করুন, যেটা হাইড্রেটিং। সোপ-ফ্রি ফোম ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন। মেকআপ তোলার সময়ও সাধারণ ওয়াইপ ব্যবহার না করে মেকআপ রিমুভাল অয়েল বা নারকেল তেল ব্যবহার করুন। এতে ত্বক অনেক বেশি আর্দ্র থাকবে।

এসপিএফ যুক্ত প্রডাক্ট

শীত কমে গিয়েছে। অথচ রোদের তাপ তেমন চড়া নয়। তাই অনেকেই এই সময় স্প্যাগেটি টপ বা নুড্‌ল স্ট্র্যাপ শর্ট ড্রেসগুলো আলমারি থেকে বার করবেন। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে যেন পর্যাপ্ত পরিমাণে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা হয়। বাইরে যাওয়ার অন্তত ১৫ মিনিট আগে সানস্ক্রিন লাগান। শুধু মুখেই নয়, হাত, পা, গলা— যে কোনও খোলা অংশে সানস্ক্রিন লাগান। এখন বাজারে নানা কোম্পানির সানস্ক্রিন স্প্রে পাওয়া যায়। সেগুলো সঙ্গে রাখুন। সারাদিন বাইরে থাকলে ঘণ্টা দুই অন্তর লাগাবেন। সাধারণ সানস্ক্রিন ছাড়াও যে মেকআপ বা বিউটি প্রডাক্টগুলোয় এসপিএফ থাকে, সেগুলো ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

চোখের যত্ন নিন

বসন্তে নিজের বিউটি রুটিনে আই ক্রিম অবশ্যই রাখবেন। রাতে শোওয়ার আগে ময়েশ্চারাইজার ছাড়াও আই ক্রিম লাগান নিয়মিত। চাইলে সকালে বেরনোর আগেও আই ক্রিম লাগান। রোদে বেরোলে অবশ্যই গগল্‌স সঙ্গে রাখুন। আই মেকআপ করলে রাতে বাড়ি ফিরে নারকেল তেল লাগিয়ে আঙুলের ডগা দিয়ে আলতোভাবে ম্যাসাজ করে মেকআপ তুলুন। ওয়াইপ দিয়ে বেশি ঘষাঘষি করলে এ সময় বলিরেখা পড়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

প্যাম্পার রুটিন

সপ্তাহে দু’দিন স্লিপিং প্যাক লাগিয়ে ঘুমোবেন। মাড প্যাক লাগালে দেখে নিন, যাতে ত্বকে কোনও রকম ইরিটেশন না হয়। পারলে বেশি করে গোলাপ জল দিন। বাজারে এখন অনেক ধরনের ব্যাটারি অপারেটেড স্কিন ম্যাসাজার- কাম-ক্লিনজার পাওয়া যায়। সেগুলো থাকলে সপ্তাহে একদিন অন্তত ডিপ ক্লিনজিং করুন। সকালে ময়েশ্চারাইজারের আগে কোনও একটা ভাল ব্র্যান্ডের স্কিন সেরাম লাগান। আর রাতে নাইট ক্রিম লাগানোর আগে কোনও ফেশিয়াল অয়েল লাগাতে পারেন। এগুলো নিয়মিত লাগালে ত্বকের পার্থক্য নিজেই বুঝতে পারবেন।

 

LEAVE A REPLY

three − 1 =