নিজেকে নিয়ে ভিডিও গেম উদ্বোধন করলেন আলিয়া ভাট

0

নিজেকে নিয়ে ভিডিও গেম। উদ্বোধনে আলিয়া ভাট। ব্যাপারটা বেশ ইউনিক। কিন্তু ভিডিও গেম নিয়ে বলিউডে পরীক্ষাপর্ব বেশ কিছুদিন ধরেই হচ্ছে। ব্যাপারটা মানুষের আবেগ আর বাণিজ্য, দুই দিকই সফলভাবে ধরেছে।

আলিয়া ভাট। নিঃসন্দেহে সব বয়সের পুরুষ-নারীর কাছে সেরা অ্যাট্রাকটিভ বলি হিরোইন। তাঁকে নিয়েই বিশেষ ভিডিয়ো গেম লঞ্চ করা হল সদ্য। খুশিতে উপচে উঠলেন আলিয়া। কিন্তু এরই মাধ্যমে বলিউডে ভিডিয়ো গেমিং-এর এন্ট্রি এগোল আরও কয়েক ধাপ। বলিউড ছবির প্রোমোশনে, বিশেষ করে বিগ বাজেট ছবির ক্ষেত্রে প্রায়শই হয়েছে ভিডিয়ো গেমস। রা ওয়ান ছবির ভিডিয়ো গেম প্রকাশ পেয়েছিল ছবির রিলিজের আগেই। এখনও বাচ্চাদের কাছে প্রবল জনপ্রিয় শাহরুখ প্রযোজিত এই গেম। এর ঠিক পরেই আছে কৃষ। হৃতিক প্রিয়াঙ্কা ও কঙ্গনার এই গেম অনলাইন রিলিজ করেছিল ছবি রিলিজের পর। এখনও জনপ্রিয় কৃষ গেম। হৃতিকের অন্য ছবি ধুম টু-এর ভিডিয়ো গেমও রিলিজ করেছিল ছবি শুরু হওয়ার আগে। এত বছর পর অবশ্য তার জনপ্রিয়তা কমেছে। ভিডিয়ো গেম রিলিজের ক্ষেত্রে মাথা খাটিয়েছেন আমির খানও। গজিনি ছবির গেম-এ আমির নিজের কণ্ঠও ব্যবহার করেছেন বাণিজ্যিক দিকটি মনে রেখেই। জিন্দগী না মিলেগি দোবারা ছবিতে টোমাটিনা ফেস্টিভ্যালের কথা নিশ্চয়ই মনে আছে অনেকেরই। টোমাটিনাকেই গেম হিসেবে কনভার্ট করা হয়েছিল, যেখানে হৃতিক, অভয় দেওল ও ফারহানের চরিত্রগুলো ছিল প্লেয়ার । তিন থেকে চার জন এই গেমটা খেলতে পারেন। একইরকম ভাবে, ব্রাদার্স ছবিটি রিলিজের আগে প্রোমোশনাল স্ট্র্যাটেজি হিসেবে ব্রাদার্স গেমও লঞ্চ করেছিলেন সিদ্ধার্থ ও অক্ষয়কুমার। যদিও ছবির কাহিনির সঙ্গে তেমন মিল ছিল না এই গেমের।

ভিডিয়ো গেম হয়েছিল শাহরুখের ডন ছবিটি নিয়েও। এখনও ভিডিয়ো গেম অন্ত প্রাণ অনেকের কাছেই এটা বেশ জনপ্রিয়। আলিয়া ভাটের হাত ধরে বলিউড গেমিং-এর দুনিয়ায় কোনও বিখ্যাত তারকার গেম চালু হল। দেখা যাক, ব্যাপারটা বলিউড বাণিজ্যকে কতটা সমৃদ্ধ করে!

LEAVE A REPLY

thirteen − 12 =