নতুন মন্ত্রণালয়ে তারানা হালিম নেই!

0

স্কাই নিউজ প্রতিবেদক: তথ্য মন্ত্রণালয়ে কক্ষ গোছগাছ করা হলেও ডাক ও টেলিযোগাযোগ থেকে পরিবর্তিত তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম নতুন দপ্তরে এখনও যোগ দেননি।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সরিয়ে নেওয়ার পর তারানা হালিমের অসন্তোষের খবরও গণমাধ্যমে এসেছিল।
ইতোমধ্যে নবনিযুক্ত ও রদবদল হওয়া অন্যান্য মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা দপ্তরে যোগ দিয়েছেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার তার মন্ত্রণালয়ে যোগ দেননি তিনি। এমনকি কারো ফোনও ধরছেন না তিনি। মন্ত্রণালয় পরির্বতন হওয়ার পর তারানা হালিমের অসন্তোষের খবরও গণমাধ্যমে এসেছিল।
এদিকে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের নতুন প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী ব্যক্তিগত ব্যস্ততার কারণে বৃহস্পতিবার অফিস করেননি।
নিজেদের মধ্যে দপ্তর বদলের পর পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আসিনুল ইসলাম মাহমুদও নতুন অফিসে যাননি। নতুন পানিসম্পদমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু অফিসে না গেলেও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রণালয়ের একটি প্রকল্পের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দেন।
অভিনেত্রী সংস্কৃতিকর্মী তারানা হালিম প্রায় তিন বছর আগে এই মন্ত্রণালয়ে যোগ দেয়ার পর কোনো মন্ত্রী ছিল না। তাকে এখন পাঠানো হয়েছে তথ্য মন্ত্রণালয়ে, সেখানে মন্ত্রী আছেন হাসানুল হক ইনু। টেলিযোগাযোগের দায়িত্ব পাওয়া নতুন মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বুধবার এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বলেন, টেলিকম ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী সেখানে আর নেই, কেন নেই আমি তা বলব না। নতুন মন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের এতদিনের কাজ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেছিলেন, আমি ধারণা করতে পারিনি যে টেলিকম ডিভিশনে ক্যান্সারের মতো সমস্যা বিরাজ করে, আর তা সমাধান করার জন্য কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি।
তারানা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনের সময় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষ বিটিআরসির সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের দ্ব›েদ্বর বিষয়টিও প্রকাশ পেয়েছিল। নতুন মন্ত্রী জব্বার বলেছেন, তিনি বিটিআরসিকে নিয়ন্ত্রণ করবেন না, বরং সহযোগিতা করবেন।
গত ২৭ ডিসেম্বর সচিবালয়ে সবশেষ অফিস করেন তারানা। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের দুই বছরের অর্জন নিয়ে মঙ্গলবার একটি সংবাদ সম্মেলনে আসার কথা ছিল তারানার। কিন্তু আগের দিন বিকালে মন্ত্রিসভার স¤প্রসারণের পাশাপাশি মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের দপ্তর রদবদলের গুঞ্জনের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর রাতে ‘অনিবার্য’ কারণে তা স্থগিত করেন তারানা। বৃহস্পতিবার ঢাকার গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুলে একটি অনুষ্ঠানে তারানার অংশ নেয়ার কথা থাকলেও তিনি ছিলেন না। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে গেলে কর্মকর্তারা জানান, মন্ত্রী আসেননি বলে তাকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানানোও হয়নি।
বিষয়টি নিয়ে তারানা হালিমের সঙ্গে কথা বলতে একাধিকবার তার মোবাইলে কল করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। সন্ধ্যায় বাড়িতে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।
সূত্র: ভোরের কাগজ, বাংলাদেশ প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

five × two =