জানুয়ারিতে ৫৭ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে ওপেক থেকে বেরিয়ে আসছে কাতার

0

অরগানাইজেশন অব পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজ (ওপেক) থেকে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিল কাতার। আগামী বছর জানুয়ারিতে  ওপেক গোষ্ঠীর সঙ্গে ৫৭ বছরে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করতে চলেছে কাতার। কাতারের জ্বালানি মন্ত্রী সাদ অল-কাবি জানিয়েছেন, জানুয়ারিতেই ওপেক গোষ্ঠী থেকে বেরিয়ে আসছে কাতার। জ্বালানি তেলের পাশাপাশি এবার জোর দেওয়া হবে প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলনের উপর।

২০১৭ সাল থেকে কূটনৈতিক এবং রাজনৈতিক সংকটে ভুগছে আরব উপসাগরীয় দেশ কাতার। সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে কাতরের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করে সৌদি আরব, মিশর, বাহারাইন এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহী। চাপানো হয় একাধিক নিষেধাজ্ঞা। ওপেক গোষ্ঠী থেকে কাতারের বেরিয়ে আসার এটি অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ওপেক থেকে কাতার বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিলেও চলতি সপ্তাহে ভিয়েনায় অনুষ্ঠিত ওপেক সম্মেলনে তারা অংশগ্রহণ করবে বলে জানিয়েছে আবদুল্লা বিন নাসেরের সরকার। সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত এতটাই সহজ ছিল না। তবে, ওপেক থেকে বেরিয়ে এলে তেল উত্পাদনে কোনও প্রভাব পড়বে না বলে জানায় কাতার। উল্টে প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলনে আরও বেশি জোর দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, ওপেক গোষ্ঠীতে তেল উত্পাদনের তালিকায় নীচে থাকলেও, বিশ্বে তৈল ভাণ্ডারের ১৩ শতাংশ রয়েছে কাতারের পকেটে। প্রাকৃতি গ্যাস রপ্তানিতে বিশ্বের প্রথম স্থানে রয়েছে কাতার। ওপেক থেকে বেরিয়ে আসার পর প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন বছরে ৭.৭ থেকে  ১১ কোটি টন বাড়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কাতার।

LEAVE A REPLY

1 × five =