এই অ্যাপগুলি আপনার মোবাইলে নেই তো!

0

 

স্কাই নিউজ প্রতিবেদক: ২০১৭ সালে গুগল প্রায় ৭ লক্ষ অ্যাপ ডিলিট করে দিয়েছিল! নতুন বছরের শুরুতেই এ রকম ২২টি অ্যাপের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করল গুগল কর্তৃপক্ষ।

মোবাইল স্লো চলছে। কোনও কাজই দ্রুত করতে পারছেন না আপনি। মুক্তি পেতে প্লে স্টোর থেকে চলার জন্য কোনও ‘বুস্ট অ্যাপ’ ডাউনলোড করলেন। কিংবা মোবাইলে ওয়াই-ফাই সংযোগ করবেন, তার জন্য সঙ্গে সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করলেন প্লে স্টোর থেকে। এমনই অনেক অ্যাপ আছে যা দরকারের সময়ে আপনি ডাউনলোড করেন প্লে স্টোর থেকে। কিন্তু সাবধান! এই সব অ্যাপ ডাউনলোডের সুযোগেই মোবাইলে হয়তো ঢুকে পড়ছে ভাইরাস কিংবা হ্যাক হয়ে যাচ্ছে আপনার মোবাইল ফোন। সম্প্রতি গুগল এ রকম ২২টি অ্যাপকে চিহ্নিত করে ডিলিট করে দিয়েছে।

এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৭ সালে গুগল প্রায় ৭ লক্ষ অ্যাপ ডিলিট করে দিয়েছিল! নতুন বছরের শুরুতেই এ রকম ২২টি অ্যাপের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করল গুগল কর্তৃপক্ষ। অ্যাপগুলি হল- স্মার্ট সুইপ, রিয়েল টাইম বুস্টার, ফাইল ট্রান্সফার প্রো, নেটওয়ার্ক গার্ড, এলইডি ফ্লাশলাইট, ভয়েস রেকর্ডার প্রো, ফ্রি ওয়াইফাই প্রো, কল রেকর্ডার প্রো, কল রেকর্ডার, রিয়েল টাইম ক্লিনার, সুপার ফ্লাশলাইট লাইট, কল ফ্লাশলাইট, মাস্টার ওয়াইফাই কি, ওয়াইফাই সিকউরিটি মাস্টার- (ওয়াইফাই এনালাইজার, স্পিড টেস্ট), ফ্রি ওয়াইফাই কানেক্ট, ব্রাইটটেস্ট এলইডি ফ্লাশলাইট অলমাইটলি, ব্রাইটেস্ট ফ্লাশলাইট, কল রেকর্ডিং ম্যানেজার, স্মার্ট ফ্রি ওয়াইফাই, ব্রাইটটেস্ট এলইডি ফ্লাশলাইট প্রো, ড. ক্লিনার লাইট, ওয়ালপেপার এইচডি-ব্যাকগ্রাউন্ড। এই অ্যাপগুলি ব্যবহার করলে মোবাইল ভাইরাস দ্বারা সংক্রমিত হওয়ার পাশাপাশি হ্যাক হয়ে যাওয়ারও সম্ভাবনা থাকে প্রবল।

জানা গিয়েছে, এই অ্যাপগুলির ব্যবহারকারীর সংখ্যাও কম নয়। তাই সব দিক বিবেচনা করেই এই অ্যাপগুলি ডিলিট করা হয়েছে বলে জানিয়েছে গুগল কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

seventeen − 5 =