ইয়াং গ্লোবাল লিডার বাংলাদেশের মালিহা

0

চ্যালেঞ্জিং ও সৃজনশীল কাজ করেন ৪০-এর কম বয়সি এমন মানুষদের মধ্য থেকে প্রতি বছর ১০০ জনকে ‘ইয়াং গ্লোবাল লিডার’-এর স্বীকৃতি দেয় সুইজারল্যান্ডভিত্তিক ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরাম৷ এই স্বীকৃতি পেলেন বাংলাদেশের মালিহা এম কাদির৷

তিনি বাংলাদেশের ‘সহজ ডটকম’ নামে একটি অনলাইন পোর্টালের প্রধান৷ এই পোর্টালের মাধ্যমে অনলাইনে বাস, লঞ্চ ও ফেরির টিকেট বিক্রি করা হয়৷

২০১৪ সালে মাত্র পাঁচজনকে নিয়ে এই কাজ শুরু করেন মালিহা৷ এখন সেখানে কাজ করেন ৮০ জন৷ কর্মীর সংখ্যা একশ’তে উন্নীত হবে শিগগিরই৷ মালিহা ডয়চে ভেলেকে জানান, ‘‘এটা সামান্যই৷ আমরা যে সেক্টর নিয়ে কাজ করছি বাস ও লঞ্চের অনলাইন টিকেট – এখানে অনেক সম্ভাবনা রয়েছে৷”

২০০৮ সালে হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল থেকে এমবিএ করা মালিহা বস্টনের স্মিথ কলেজ থেকে অর্থনীতি এবং কম্পিউটার সায়েন্সে আন্ডার গ্রাজুয়েট৷ এমবিএ পড়ার মাঝে বিরতি নিয়ে বাংলাদেশে এসে ব্র্যাক ডটনেটে কাজ করেছেন৷ এমবিএ করার পর সিঙ্গাপুরে নকিয়াসহ বেশ কয়েকটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কাজ করেছেন৷

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম যাদের ‘ইয়াং গ্লোবাল লিডার্স ক্লাস অব-২০১৭-‘ এ অন্তর্ভূক্ত করেছে, তাঁদের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশি মলিহা৷ তাঁদের ওয়েব সাইটে বলা হয়েছে, ‘‘মালিহা বাংলাদেশের পরিবহন শিল্প খাত ডিজিটালাইজেশনে যুগান্তকারী কাজ করেছে৷

LEAVE A REPLY

seventeen − two =