ইসরাইলি বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে আহত অর্ধশত ফিলিস্তিনি

0

স্কাই নিউজ প্রতিবেদক: শুক্রবার গাজা সীমান্তে ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলি সেনাবাহিনীকে লক্ষ্য করে যখন পাথর ও হাতবোমা ছুড়ছিল, তার জবাবে ইসরায়েলি সেনারা তাদের দিকে গুলি চালায়৷ এতে আহত হয়েছেন কমপক্ষে অর্ধশত ফিলিস্তিনি৷

শুক্রবার পশ্চিমতীর ও গাজায় রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে অংশ নেন কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি৷ ‘জেরুসালেম হবে ইসরায়েলের রাজধানী’ – ট্রাম্প প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শুক্রবার ‘বিক্ষোভের দিন’ ঘোষণা করেছিল ফিলিস্তিনিরা৷ জুমার নামাজের পর বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নেমে আসে৷ ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হয় কমপক্ষে অর্ধশত ফিলিস্তিনি৷

ইসরাইলের এক সেনা মুখপাত্র জানিয়েছেন, অন্তত চার হাজার বিক্ষোভকারী শুক্রবার সীমান্তে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছিল৷ বিক্ষোভকারীরা আগুন বোমা, পাথর এবং টায়ারে আগুন লাগিয়ে তাদের দিকে ছুড়ে মারছিল৷ তিনি জানান, বিক্ষোভকারীদের নিরস্ত্র করতে তারা কেবল কাদানে গ্যাস ব্যবহার করেছিলেন৷ তবে আরো কয়েকজন সেনা গুলি ছোড়ার কথাও স্বীকার করেছেন৷ তারা স্বীকারোক্তি হিসেবে বলেছেন, বিক্ষোভকারীরা যখন সীমান্তের বেড়া ভেঙে ফেলার চেষ্টা করছিল, তখন তারা ফাঁকা গুলি ছুড়েছেন৷

গাজায় বিক্ষোকারীদের স্লোগান ছিল – ‘অ্যামেরিকা নিপাক যাক, ইসরায়েল নিপাক যাক, ট্রাম্পের মরণ হোক৷’ ইসরায়েলের সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘তাদের লক্ষ্য করে জঙ্গি সংগঠন হামাস রকেট ছোড়ার পর, ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা এবং বিমান বাহিনী গাজার উত্তরাঞ্চলে হামাসের ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে৷’

ট্রাম্পের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের পর ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন ১২ জন ফিলিস্তিনি৷ ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে শুধু ফিলিস্তিনিরাই নন, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নিন্দা জানিয়েছেন৷

 

LEAVE A REPLY

8 − 1 =