অস্ট্রেলিয়ার উৎসব ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে

0


স্কাই নিউজ প্রতিবেদক:
হাসপাতালের বিছানা থেকে উঠে এসে লড়াই করছিলেন জো রুট। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পেরে উঠলেন না অসুস্থতার সঙ্গে। ভেঙে গেল ইংল্যান্ডের প্রতিরোধও। ইনিংস ব্যবধানের জয়ে অ্যাশেজ ফিরিয়ে আনার উৎসবে মাতল অস্ট্রেলিয়া।
সিডনি টেস্টে ইংল্যান্ডকে ইনিংস ও ১২৩ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। সোমবার শেষ দিনে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস থমকে যায় ১৮০ রানেই।
অ্যাশেজ পুনরুদ্ধার অভিযান প্রথম তিন টেস্ট জিতেই সেরে নিয়েছিল স্টিভেন স্মিথের দল। অ্যালেস্টার কুকের রেকর্ড গড়া ডাবল সেঞ্চুরিতে ‘বক্সিং ডে’ টেস্ট ড্র করতে পেরেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু শেষ টেস্ট জিতে ৪-০ ব্যবধানের জয়ে রঙিন হলো অস্ট্রেলিয়ার জয়োৎসব।
শেষ দিনে ম্যাচ বাঁচানোয় ইংল্যান্ডের ভরসা ছিল রুট। কিন্তু ৪২ রানে অপরাজিত অধিনায়ক দিনের শুরুতে নামতেই পারলেন না ব্যাটিংয়ে। ডায়রিয়া ও বমি নিয়ে তাকে যেতে হয়েছিল হাসপাতালে।
৪ উইকেটে ৯৩ রানে দিন শুরু করেছিল ইংল্যান্ড। জনি বেয়ারস্টোর সঙ্গে শুরু করেন মইন আলি। বেশি লম্বা হয়নি এই জুটি। সিরিজে প্রিয় শিকারে পরিণত করা মইনকে আরও একবার ফিরিয়ে দেন নাথান লায়ন।
হাসপাতালকে থেকে ফিরে এরপর ব্যাটিংয়ে নামেন রুট। লাঞ্চ পর্যন্ত আর কোনো উইকেট হারায়নি ইংল্যান্ড।
কিন্তু লাঞ্চের পর আর ব্যাটিংয়ে নামতে পারেননি ৫৮ রানে অপরাজিত রুট। ইংল্যান্ডও আর পারেনি অস্ট্রেলিয়াকে থামিয়ে রাখতে। জনি বেয়ারস্টোর বাধা সরান প্যাট কামিন্স। ওই ওভারে ফিরিয়ে দেন স্টুয়ার্ট ব্রডকেও।
দ্বিতীয় নতুন বলে ধরা দেয় শেষ দুই উইকেট। হতাশার সিরিজ ইংল্যান্ডের শেষ হয় বড় পরাজয়ে।
অস্ট্রেলিয়ার তিন ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি করলেও দুই ইনিংসে ৪টি করে উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা কামিন্স। আর মোট ৬৮৭ রান করে সিরিজ সেরা অধিনায়ক স্মিথ।

LEAVE A REPLY

fourteen − eleven =